মঙ্গলবার ১২ ডিসেম্বর ২০১৭ || সময়- ৬:১৪ am

বাংলা চলচ্চিত্রকে ধ্বংস করেছে শাবানা ম্যাডাম!

অনলাইন ডেস্ক/বাংলা চলচ্চিত্রকে ধ্বংস করেছে শাবানা মেডাম! শাবানা চলচ্চিত্র ছেড়ে আমেরিকায় চলে গেল আর বাংলা চলচ্চিত্রকে ধ্বংস করে গেল।পরিবারে ঘটে যাওয়া পরিচিত গল্পের ছবি হত, মানুষ ছবির চরিত্রগুলো নিজেদের সঙ্গে মেলাতেন। যখন দেখতো ছবির গল্প জীবনের সঙ্গে মিলে গেছে তখন ছবিতে দেখে আবার অপেক্ষায় থাকতো তার সময়ে পারিবারিক গল্পের ছবি দিয়ে দর্শক মাতিয়ে রাখতেন। ছবি দেখে দর্শক হলে বসেই কাঁদতো-হাসতো আনন্দ করতো। শাবানা অভিনীত ছবি মানেই মা-বোনরা দেখতে হুমড়ি খেয়ে পড়তো।

শাবানার সিনেমা কখন আসবে। শাবানার অনুপস্থিতিই চলচ্চিত্র ধ্বংসের ধারপ্রান্তে এমটাই মনে করেন ৫০০ ছবির সফল অভিনেতা সিরাজ হায়দার।

চলচ্চিত্রের বর্তমান অবস্থা নিয়ে কথা বলতে গিয়ে একান্ত সাক্ষাতকারে তিনি এসব কথা জানান। এই অভিনেতা আরো বলেন, ‘তিনি (শাবানা) নেই বলে আজ পারিবারিক সুন্দর গল্পের ছবি নির্মিত হচ্ছে না। মানুষ এখন আর আগের মতো ছবি দেখে হাসতে বা কাঁদতে পারে না। ছবির সঙ্গে তাদের জীবনের মিল খুঁজে পায় না। তাই এখন আর পারিবারিক ভাবে দর্শক ছবি দেখতেও আসে না।’

তিনি আরো বলেন, ‘দর্শক হলে আনতে হলে পারিবারিক গল্পের ছবি চাই। বাস্তবতার নিরিখে সে ছবি নির্মিত হতে হবে। হলে নারী টানতে হবে। তবেই আবার আমদের সিনেমা দেখতে হলমুখি হবে।’

‘মেয়েরাও মানুষ’ ছবিটি ১৯৯৭ সালে মুক্তি পায়। এর পর থেকেই লোকচক্ষুর আড়ালে চলে যান কিংবদন্তি অভিনেত্রী শাবানা। বর্তমানে নিউ জার্সিতে বসবাস করছেন তিনি। ১৯৯৭ সালে শাবানা দীর্ঘ ৩৪ বছরের কর্মজীবন শেষে চলচ্চিত্রাঙ্গন থেকে বিদায় নেন। এর পর  থেকে আর রূপালি পর্দায় দেখা যায় নি এই শক্তিমান অভিনেত্রীকে

আর্কাইভ