শুক্রবার ১৫ ডিসেম্বর ২০১৭ || সময়- ২:৫৪ am

প্রাণ জিরা পানি না RC জিরা পানি ! আপনার ভোট দিন আর মতামত জানান।

স্পষ্ট বাংলা ভাষায় লিখা “জিরা পানি” তৈরির উপকরনে কোথাও জিরা’র অস্থিত্ব নেই। কেবল সব শেষে “এডেড জিরা ফ্লেভার” লিখা।সাম্প্রতিক বাজারে একাধিক কোম্পানীর বোতলজাত জিরা পানি বেশ বিক্রি হচ্ছে। বিশেষ করে “পারটেক্স কোম্পানীর আর সি এবং আরএফএল এর প্রাণ” এর রকমারি চমকপ্রদ বিজ্ঞাপনে ক্রেতাদের “জিরা পানি”র প্রতি বেশী আকৃষ্ট করছে। ছেলে বুড়ো থেকে ঘরের গৃহিনীদের কাছেও জিরা পানি দিন দিন বেশ জনপ্রিয়তা পাচ্ছে। জিরা এক ধরনের প্রচলিত মসল্লা।স্পষ্ট বাংলা ভাষায় লিখা “জিরা পানি” তৈরির উপকরনে কোথাও জিরা’র অস্থিত্ব নেই। কেবল সব শেষে “এডেড জিরা ফ্লেভার” লিখা।

যার মানে কেবল জিরার কৃত্রিম স্বাদ ছাড়া ওতে জিরার আর কিছুই নেই। অনেক ক্রেতার ধারনা জিরা পানিতে অন্তত জিরার নির্যাস (extract) মেশানো থাকবে অথচ এতে জিরার রেশ মাত্র নেই। এটাও এক ধরনের বোকাকোলা মানে পাবলিককে বোকা বানিয়ে টাকা টামানোর আরেকটি উপকরন মাত্র। এতে E221–সোডিয়াম বেনজোয়েট নামক একধরনের প্রিজারভেটিভ মেশানো আছে । চিকিৎসকদের মতে প্রিজারভেটিভ স্বাস্থ্যের জন্য ক্ষতিকর। বিশেষ করে শিশুদের দেহে এটা দ্রুত প্রতিক্রিয়া সৃষ্টি করে।তাই প্রিজারভেটিভ মেশানো খাবার খাওয়া থেকে সকলেরই বিরত থাকার পরামর্শ দেয়া হয়।এর অনেক ঔষধি গুন আছে বিশেষ করে এটা হজম সহায়ক. বাজারে বিক্রি হওয়া জিরা পানির বোতলের গায়ে লিখ তৈরীর উপকরনের তালিকা পড়ে বিষ্মিত হতে হবে।

 

আর্কাইভ